সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসায় যেতে চাচ্ছেন কিন্তু বেতন কত টাকা জানেন না বা কোম্পানি ভিসা সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানেন না এমন মানুষের সংখ্যা নেহায়তই কম না।

আপনি যদি কোম্পানি ভিসায় সৌদি আরব যেতে চান তবে সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসা বেতন কত টাকা জেনে রাখা আবশ্যক। আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে সৌদি আরবের কোন কাজে বেতন বেশি এবং কোম্পানি ভিসা বেতন নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবো।

সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসা

সৌদি আরবের বিভিন্ন কোম্পানিতে কাজ করতে চাইলে বাংলাদেশ থেকে কোম্পানি ভিসা নিয়ে সৌদি আরব যেতে হবে। আমাদের দেশ থেকে যেসব ভাই প্রবাসে গিয়ে টাকা উপার্জন করতে ইচ্ছুক, তাদের মাঝে অধিকাংশই সৌদি আরব যেতে চান।

আবার, সৌদি আরব যেতে ইচ্ছুক ভাইয়েরা কোম্পানি ভিসায় সৌদি গিয়ে টাকা উপার্জন করতে চান। অর্থাৎ, যে ভিসা করলে সৌদি আরব গিয়ে কোম্পানির ভিতরের কাজ করা যাবে এই ভিসার চাহিদা আমাদের দেশে অনেক বেশি। যারা কোম্পানি ভিসায় সৌদি আরব যেতে চান, তারা এই ভিসার বেতন কত এটি জানতে আগ্রহী।

তো চলুন, সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসা বেতন কত টাকা জেনে নেয়া যাক।

সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসা বেতন কত টাকা

সৌদি আরবের অনেক নামকরা কোম্পানিতে কাজ করার জন্য আমাদের দেশের অনেক ভাই আবেদন করে থাকেন। আপনিও যদি সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসা পেতে চান, তবে নিম্নে উল্লিখিত কোম্পানি গুলোতে আবেদন করতে পারেন। নিচে কিছু জনপ্রিয় সৌদি কোম্পানির নামের তালিকা উল্লেখ করে দিলাম। এগুলো থেকে প্রতি বছর শ্রমিক নিয়োগ দেয়া হয়ে থাকে।

  • আরমাকো কোম্পানি
  • আলমারাই কোম্পানি 
  • পেপসি কোম্পানি
  • বলদিয়া কোম্পানি
  • বিনলাদেন কোম্পানি
  • আল ইমামা কোম্পানি

এসব সৌদি আরবের কোম্পানিতে বিভিন্ন পদে শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে থাকে। যেমন – লেবার ভিসা, ড্রাইভিং ভিসা এবং সুপারমার্কেট ভিসা।

আরও পড়ুন - সৌদি আরবে কোন কাজের চাহিদা বেশি

সৌদি আরবে ড্রাইভিং ভিসায় প্রতি মাসে ২ হাজার রিয়াল পর্যন্ত বেতন দিয়ে থাকে। লেবার ভিসায় ৮০০ থেকে ১২০০ রিয়াল পর্যন্ত বেতন দিয়ে থাকে এবং সুপারমার্কেট ভিসায় ১২০০-১৪০০ রিয়াল পর্যন্ত বেতন দিয়ে থাকে। আপনি সৌদি আরব কোম্পানি ভিসায় আবেদন করতে চাইলে এসব ভিসায় আবেদন করতে পারেন।

সৌদি আরবের আরামকো কোম্পানি ভিসা

সৌদি আরবের একটি জনপ্রিয় কোম্পানি হচ্ছে আরামকো। আরামকো কোম্পানি ভিসায় আবেদন করার মাধ্যমে এই কোম্পানিতে কাজ করার সুযোগ পাবেন। আমাদের দেশের অধিকাংশ যুবক এই কোম্পানিতে কাজ করতে চান। কারণ, সৌদি আরবের আরামকো কোম্পানি ভিসা পেলে অল্প সময়ে অধিক টাকা উপার্জন করা যায়।

এছাড়াও আরামকো কোম্পানি ভিসা পেলে অনেক সুযোগ সুবিধা পাওয়া যায়। আপনি যদি আরামকো কোম্পানি ভিসা পেতে চান, তবে এই কোম্পানির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে আবেদন করুন।

সৌদি আরবে কোন কাজের বেতন বেশি

সৌদি আরবে গিয়ে অল্প সময়ে বেশি টাকা উপার্জন করতে পারবেন এমন কিছু কাজ রয়েছে। আপনি যদি এসব কাজ করতে চান, তবে আপনাকে অবশ্যই এসব নির্দিষ্ট ভিসায় যেতে হবে। অতঃপর, প্রতি মাসে ভালো পরিমাণে উপার্জন করতে পারবেন। নিচে সৌদি আরবে কোন কাজের বেতন বেশি তার একটি তালিকা উল্লেখ করে দিয়েছি। চলুন, দেখে নেয়া যাক।

  • ড্রাইভিং
  • ইলেকট্রিশিয়ান
  • কনস্ট্রাকশন
  • রেস্টুরেন্ট
  • সুপারমার্কেট

সৌদি আরব এসব ভিসায় যেতে পারলে প্রতি মাসে ১ হাজার রিয়াল এর বেশি ইনকাম করতে পারবেন। অর্থাৎ, বাংলাদেশি টাকায় প্রায় এক লক্ষ টাকার বেশি ইনকাম করতে পারবেন। তাই, আপনি যদি সৌদি আরব গিয়ে অল্প সময়ে বেশি টাকা উপার্জন করতে চান, এসব ভিসার জন্য এপ্লাই করতে পারেন।

সৌদি আরব কোম্পানি ভিসায় আবেদন করার নিয়ম

সৌদি আরব কোম্পানি ভিসায় আবেদন করার জন্য কোম্পানির জব সার্কুলার দেখতে হবে। বছর শুরুর দিকে বিভিন্ন সৌদি কোম্পানি থেকে শ্রমিক নিয়োগ দিয়ে থাকে। এসব নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে আবেদন করার মাধ্যমে সরকারিভাবে বা বেসরকারিভাবে সৌদি আরব যেতে পারবেন।

আরও পড়ুন - সৌদি আরব কোন ভিসা ভালো

সৌদি আরব যাওয়ার জন্য অবশ্যই সরকারিভাবে নিজে আবেদন করে যাওয়ার চেষ্টা করবেন। কারণ, বিভিন্ন বেসরকারি এজেন্সি বা দালালের সহযোগিতা নিলে ৮-১০ লক্ষ টাকা লাগতে পারে সৌদি আরব যাওয়া। যেখানে আপনি সরকারিভাবে ৩-৪ লক্ষ টাকায় সৌদি আরব যেতে পারবেন।

সৌদি আরব কোম্পানি ভিসায় আবেদন করার পূর্বে আপনি যে কাজ করতে আগ্রহী সেই কাজে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে। আপনার অভিজ্ঞতা থাকলে অল্প সময়ের মাঝে বেতন বেশি হয়ে যাবে। অর্থাৎ, আপনি অল্প সময়ের মাঝেই প্রোমোশন পেয়ে যাবেন। সৌদি আরবে প্রতিটি কাজের উপর দক্ষ কর্মীদের নিয়োগ দেয়া হয়ে থাকে এবং বেতন বেশি দেয়া হয়ে থাকে।

তাই, যেকোনো কাজে দক্ষ হওয়ার পর সৌদি ভিসায় আবেদন করতে হবে। তাহলে অল্প সময়ে অধিক অর্থ উপার্জন করতে পারবেন।

FAQ

সৌদি আরবে কোন কাজের বেতন বেশি?

সৌদি আরবে ড্রাইভিং, কন্সট্রাকশন, ওয়েল্ডিং, কোম্পানির বিভিন্ন কাজে বেতন বেশি দিয়ে থাকে।

এই পোস্টে আপনাদের সাথে সৌদি আরবের কোম্পানি ভিসা বেতন কত টাকা সহ আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ে থাকলে কোম্পানি ভিসা সম্পর্কে জানতে পেরেছেন বলে আশা করছি। আরও এমন তথ্য জানতে নিচে উল্লিখিত পোস্টগুলো পড়তে পারেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 Comments

  1. আমি হোন্ডাই ইন্জিনিয়ারিং
    এন্ড কনস্ট্রাকশন লিমিটেড।
    এই কোম্পানির বিষয়ে জানতে চায়।

    1. হুন্ডাই ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড কনস্ট্রাকশন কোং লিমিটেড (HDEC) দক্ষিণ কোরিয়ার সিওলে অবস্থিত একটি দক্ষিণ কোরিয়ান নির্মাণ কোম্পানি। এটি 1947 সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং এটি হুন্ডাই মোটর গ্রুপের একটি অংশ। HDEC দক্ষিণ কোরিয়ার বৃহত্তম নির্মাণ কোম্পানি এবং এটি বিশ্বের বৃহত্তম নির্মাণ কোম্পানিগুলির মধ্যে একটি। বিদ্যুৎ কেন্দ্র, রাসায়নিক কারখানা, সেতু, সুড়ঙ্গ এবং ভবন সহ বিভিন্ন ধরণের নির্মাণ প্রকল্পে কাজ করেছে। এটি দুবাই মেট্রো, ইঞ্চিয়ন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর এবং সিঙ্গাপুরের মেরিনা বে স্যান্ডসের মতো বেশ কয়েকটি উল্লেখযোগ্য প্রকল্প সম্পন্ন করেছে।