জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার মাধ্যমে জন্ম সনদ অনলাইন করা আছে কি না জানা যায়। জন্ম সনদ দিয়ে কোথাও আবেদন করতে গেলে অনলাইন কপি থাকতে হবে। আপনার জন্ম সনদটি অনলাইন করা আছে কি না জানার জন্য নিবন্ধন যাচাই করতে পারেন।

অনলাইনে জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম সনদ যাচাই করা যায়। জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ দিয়ে কিভাবে সহজেই অনলাইনে জন্ম সনদ যাচাই করতে হয়, সে বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি এই পোস্টে।

জন্ম নিবন্ধন কার্ড অনলাইন করা আছে কি না চেক করতে এবং জন্ম সনদ অনলাইন করার পদ্ধতি জানতে এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য জন্ম নিবন্ধন এবং মৃত্যু নিবন্ধন ওয়েবসাইট https://everify.bdris.gov.bd/ ওয়েবসাইট ভিজিট করুন। এরপর, ১৭ ডিজিটের জন্ম সনদ নাম্বার এবং জন্ম তারিখ লিখে নিচে থাকা ক্যাপচা পূরণ করে Search বাটনে ক্লিক করে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করতে পারবেন।

অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য জন্ম সনদের ১৭ ডিজিটের কোড লাগবে। আপনার জন্ম সনদ যদি ১৭ ডিজিটের না হয়ে থাকে কিংবা হাতে লেখা জন্ম সনদ হয়ে থাকে, তবে এই পদ্ধতি অনুসরণ করে জন্ম সনদ যাচাই করতে পারবেন না।

১৭ ডিজিটের কোড ছাড়া জন্ম জন্ম নিবন্ধন চেক করতে হলে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে হয়। কিভাবে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন আবেদন করতে হয় এ বিষয়ে পরবর্তীতে একটি বিস্তারিত পোস্ট করবো। আগ্রহী থাকলে মন্তব্য করতে ভুলবেন না।

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য –

  • https://everify.bdris.gov.bd/ ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।
  • Birth Registration Number : লেখার নিচের বক্সে ১৭ ডিজিটের জন্ম সনদ নাম্বার দিন।
  • নিচের ঘরে জন্ম তারিখ লিখে দিন (বছর-মাস-তারিখ ফরম্যাটে)।
  • ছবিতে দেয়া ক্যাপচার উত্তর ফাঁকা বক্সে লিখুন।
  • Search বাটনে ক্লিক করে জন্ম সনদ যাচাই করে নিন।

উপরে উল্লিখিত এই ৫টি সহজ পদ্ধতি অনুসরণ করে সহজেই ১৭ ডিজিটের জন্ম সনদ যাচাই করে নিতে পারবেন এবং জন্ম নিবন্ধন সনদের সকল তথ্য বের করতে পারবেন।

আরও পড়ুন –জন্ম নিবন্ধন ফি কত টাকা ২০২৩

জন্ম নিবন্ধন যাচাই yyyy mm dd

জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ দিয়ে আপনার বা যে কারও জন্ম সনদ অনলাইনে আছে কি না যাচাই করা যায়। Birth Certificate Check করার জন্য bdris.gov.bd ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হয়। এই ওয়েবসাইটে সকল জন্ম নিবন্ধন এবং মৃত্যু নিবন্ধন এর তথ্য সংরক্ষিত থাকে।

কোড দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য নিচে উল্লিখিত পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করুন। অনলাইন জন্ম নিবন্ধন চেক করার সকল পদ্ধতি নিচে ছবিসহ উল্লেখ করে দিয়েছি।

জন্ম ও মৃত্যু নিবন্ধন ওয়েবসাইট ওপেন করুন

জন্ম নিবন্ধন সনদপত্র যাচাই করার জন্য প্রথমেই এই লিংকে -> https://everify.bdris.gov.bd/ ভিজিট করবেন কিংবা গুগলে সার্চ করে উক্ত ওয়েবসাইটে ভিজিট করবেন। এরপর, নিচের ধাপ অনুসরণ করুন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই

জন্ম নিবন্ধন নাম্বার এবং জন্ম তারিখ পূরণ করুন

Birth Registration Number লেখার নিচের বক্সে আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের নাম্বার লিখে দিবেন। অতঃপর, Date of Birth (YYYY-MM-dd) লেখার নিচের বক্সে জন্ম সনদ অনুযায়ী বছর-মাস-তারিখ জন্ম তারিখ লিখে দিবেন।

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

ক্যাপচা কোড পূরণ করুন

নিচে সংযুক্ত করা ইমেজের মতো করে ক্যাপচা কোড পূরণ করে দিবেন। ছবিতে সাধারণত দুইটি সংখ্যার যোগ কিংবা বিয়োগ দেয়া হবে। অংকটির উত্তর লিখে দিবেন নিচের বক্সে। এরপর সার্চ বাটনে ক্লিক করলে জন্ম সনদের সকল তথ্য যাচাই করতে পারবেন।

কোড দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই

অনলাইন জন্ম নিবন্ধন যাচাই

সার্চ বাটনে ক্লিক করার পর আপনার উপরে দেয়া ইমেজের মতো পেজ দেখতে পাবেন। এখানে, রেজিস্ট্রেশন ডেট, জন্ম তারিখ, ব্যক্তির নাম, জন্মস্থান, মাতারা নাম, মাতার জাতীয়তা, পিতার নাম, পিতার জাতীয়তা সহ আরও অনেক তথ্য বিস্তারিত দেখতে পাবেন।

সার্চ বাটনে ক্লিক করার পর যদি No Record Found লেখা দেখেন, তবে বুঝে নিতে হবে আপনার জন্ম সনদটি অনলাইন করা নেই। এক্ষেত্রে, জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

আরও পড়ুন – জন্ম নিবন্ধন ইংরেজি করার নিয়ম

১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন যাচাই

আপনার জন্ম সনদ যদি ১৬ ডিজিটের হয়ে থাকে, তবে উপরে দেয়া পদ্ধতি অনুসরণ করে সার্চ করতে গেলে No Record Found লেখা দেখেবন। এক্ষেত্রে, আমরা ছোট্ট একটি কাজ করে উপরোক্ত পদ্ধতিই অনুসরণ করে জন্ম সনদ যাচাই করতে পারি।

১৬ ডিজিটের জন্ম সনদের নিবন্ধন অনলাইনে যাচাই করতে ১৬ ডিজিটের সনদের নাম্বারের শেষ ৫ ডিজিটের সামনে একটি ০(শুন্য) বসিয়ে ১৭ ডিজিট করতে হবে। অর্থাৎ, জন্ম সনদ নাম্বার যদি হয় 2006456475839475 তবে শেষ ৫ ডিজিট অর্থাৎ, 39475 এর সামনে ০ বসাতে হবে। ১৬ ডিজিট থেকে ১৭ ডিজিট হওয়ার পর এমন হবে -> 20064564758039475 ।

অতঃপর, উক্ত ১৭ ডিজিটের জন্ম সনদ নাম্বার দিয়ে উপরে উল্লেখ করে দেয়া পদ্ধতি অনুসরণ করে জন্ম নিবন্ধন পত্র যাচাই করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন যাচাই Apps

বাংলাদেশ জন্ম নিবন্ধন এবং মৃত্যু নিবন্ধন অফিস কর্তৃক কোনো অ্যাপ পাবলিশ করা হয়নি। তবে, গুগল প্লে স্টোরে জন্ম সনদ যাচাই করার জন্য অনেক অ্যাপ পাবেন। এসব অ্যাপ মূলত সরকারী ওয়েবসাইটকে অ্যাপে রুপান্তর করেছে।

জন্ম সনদ যাচাই করতে চাইলে উপরে উল্লিখিত পদ্ধতি অনুসরণ করতে পারেন। এজন্য আলাদা করে কোনো অ্যাপ প্রয়োজন নেই। তবে আপনি চাইলে প্লে স্টোর থেকে যেকোনো অ্যাপ ইন্সটল করে নিতে পারেন।

Frequently Asked Questions

Jonmo Nibondhon Jachai করবো কিভাবে?

উপরে উল্লিখিত পদ্ধতি অনুসরণ করে সহজেই জন্ম সনদের তথ্য অনলাইনে যাচাই করতে পারবেন।

জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই লিংক কি?

জন্ম সনদ যাচাই করার ওয়েবসাইটের লিংক হচ্ছে – https://everify.bdris.gov.bd/ এটি।

No Record Found দেখানোর কারণ কি?

১৬ ডিজিটের জন্ম সনদ কিংবা অনেক আগের হাতে লেখা জন্ম সনদ, যা অনলাইন করা হয়নি, এগুলো যাচাই করতে গেলে No Record Found লেখা দেখায়। উপরে উল্লেখ করে দেয়া পদ্ধতি অনুসরণ করে ১৬ ডিজিটের জন্ম সনদ ১৭ ডিজিট করার পর চেষ্টা করলে এই সমস্যা থাকবে না।

১৬ ডিজিটের জন্ম নিবন্ধন কিভাবে যাচাই করব?

১৬ ডিজিটের জন্ম সনদের নাম্বারের শেষের ৫ ডিজিটের পূর্বে একটি ০ (শুন্য) বসিয়ে ১৭ ডিজিট করে নেয়ার পর উক্ত ১৭ ডিজিটের সনদ নাম্বার দিয়ে জন্ম সনদের নিবন্ধন যাচাই করা যাবে।

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করবো কিভাবে?

জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে। অতঃপর, ১৭ ডিজিটের জন্ম সনদের নাম্বার এবং জন্ম তারিখ লিখতে হবে। এরপর, ক্যাপচা কোড পূরণ করে সার্চ করতে হবে। তাহলে, জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন সনদ যাচাই করা যাবে।

নাম ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার নিয়ম কি?

নাম ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার জন্য everify.bdris.gov.bd ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে। এরপর, ১৭ ডিজিটের জন্ম সনদের নাম্বার, জন্ম তারিখ লিখতে হবে ও ক্যাপচা কোড পূরণ করতে হবে। তাহলে, সার্চ করে নিবন্ধন সনদ যাচাই করা যাবে।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই ওয়েবসাইট কোনটি?

জন্ম নিবন্ধন অনলাইন যাচাই ওয়েবসাইট হচ্ছে everify.bdris.gov.bd । এই ওয়েবসাইট থেকে অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি সংগ্রহ করতে পারবেন।

আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে নাম ও জন্ম তারিখ দিয়ে জন্ম নিবন্ধন যাচাই করার পদ্ধতি এবং কিভাবে জন্ম তথ্য যাচাই করতে হয় তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। আশা করছি, পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়েছেন। আরও এমন তথ্য জানার জন্য নিচে উল্লিখিত পোস্টগুলো পড়তে পারেন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 Comments

      1. Vai akta ktha selo
        Amr akjoner birthday tarik ta jani but tar
        Birth certificate number ta jani na
        To kmne ota dekte pari kisu advice dite parben plz

        1. শুধু জন্ম তারিখ দিয়ে তো সনদ নাম্বার বের করা সম্ভব না ভাই।

      2. নিবন্ধন নাম্বার ছাড়া জন্ম নিবন্ধন বের করা যায় কি
        জানাবেন একটু প্লিজ

        1. না। নিবন্ধন না করলে তার নাম সরকারি তালিকায় থাকবে না। তাই, নিবন্ধন বের করা যাবেনা।

    1. শ্রদ্ধেয়
      আমার পরিবারের স্মার্ট কার্ডে সাবিনা আক্তার খানম এর স্থলে সবিনা আক্তার খানম অর্থাৎ আকার সমস্যা অন্য সকল ঠিক আছে কি করনিয় জানালে উপকার হবে
      ssaba.bappy70@gmail

      1. আসসালামু আলাইকুম। আপনাকে স্মার্ট কার্ডের তথ্য সংশোধন করতে হবে।

    2. শ্রদ্ধেয়
      আমার পরিবারের স্মার্ট কার্ডে সাবিনা আক্তার খানম এর স্থলে সবিনা আক্তার খানম অর্থাৎ আকার সমস্যা অন্য সকল ঠিক আছে কি করনিয় জানালে উপকার হবে
      saba.bappy70@gmail

  1. আমার জন্মনিবন্ধন অনলাইন করা ছিলো আমার জাতীয় পরিচয় নাম্বারটা দিয়ে পাসপোট করা এখন আর অনলাইনে জন্ম নিবন্ধন দেখা যাইতেছেনা এখন আমার করনীয় কি?

    1. অনলাইন করা থাকলে অবশ্যই আপনার জন্ম নিবন্ধন সনদের নাম্বার দিয়ে অনলাইনে চেক করে দেখতে পারবেন। যদি না পারেন, তাহলে হতে পারে আপনার জন্ম সনদটি ১৭ ডিজিটের নয়। ১৬ ডিজিটের জন্ম সনদ ১৭ ডিজিট করার নিয়ম অনুসরণ করে চেক করে দেখতে পারেন। তবু যদি না হয়, তাহলে ইউনিয়ন পরিষদ বা সিটি কর্পোরেশনে যোগাযোগ করুন।