ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার নিয়ম

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার নিয়ম অনুসরণ করে সহজেই আপনার ই পাসপোর্ট এর ভুল হওয়া তথ্যের আবেদন বাতিল করতে পারবেন। আমরা যখন ই পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করি, তখন অনিচ্ছাকৃতভাবে ভুল হয়ে যায়। এমতাবস্থায়, আমরা চাইলে ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত করে আবেদন বাতিল করে নিতে পারি।

অনেকেই জানেন না যে, ই পাসপোর্ট আবেদনে ভুল হলে করণীয় কী। তাই, আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার ফরম কীভাবে পূরণ করবেন এবং আবেদন বাতিলের জন্য দরখাস্ত করবেন এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো। তো চলুন, পোস্টের মূল বিষয়ে ফিরে আসা যাক।

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার নিয়ম

ই পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করার পর যদি দেখা যায় কোনো ভুল হয়েছে বা পাসপোর্ট এর কপি জমার দেয়ার পর যদি কোনো ভুল দেখিয়ে পাসপোর্ট এর আবেদন কপি ফিরিয়ে দেয়, তখন পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার জন্য আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালকের কাছে একটি দরখাস্ত লিখতে হয়।

চিঠি লিখে ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার জন্য দরখাস্ত করতে হবে। তবে, আপনার পাসপোর্ট আবেদন করার পর যদি ভুল দেখা যায়, তখন আর পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করতে পারবেন না। সেক্ষেত্রে, পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন করতে হবে।

অনলাইনে ই পাসপোর্ট আবেদন করার পর আবেদনের কপি পাসপোর্ট অফিসে জমা দিতে হয়। যদি পাসপোর্ট আবেদন করার পর আবেদনের কপি জমা না দেয়া হয়, তবে ৬ মাসের মাঝে উক্ত আবেদন বাতিল হয়ে যাবে। কোনো ভুল হলে যদি পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করতে চান, তবে ৬ মাস অপেক্ষা করার প্রয়োজন নেই আবেদন বাতিল করার জন্য।

এক্ষেত্রে, আমরা পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালকের কাছে একটি ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত লিখতে পারি। তাহলে আমরা এক দিন থেকে কয়েক দিনের মাঝেই ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করে নিতে পারবো। তো চলুন, ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার ফরম এবং দরখাস্ত কীভাবে লিখতে হয়/পূরণ করতে হয় দেখে নেয়া যাক।

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করতে হলে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালকের কাছে একটি দরখাস্ত লিখতে হয়। নিচে আপনাদের জন্য পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত উল্লেখ করে দিয়েছি।

তারিখ: ২৪/০৮/২০২৩

বরাবর,
সহকারী পরিচালক
আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস
রংপুর

বিষয়: ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত

জনাব,
বিনীত নিবেদন এই যে, আমি মোঃ ফারহান ইসলাম, পিতা: মোঃ মফিজার রহমান, মাতা: মোছাঃ ফেরদৌসি বেগম। আমি গত ২৩/০৮/২০২৩ তারিখে ই পাসপোর্টের জন্য আবেদন করেছিলাম। উক্ত আবেদনের অনলাইন রেজিস্ট্রেশন আইডি নং OID100*****। ভুলবশত পাসপোর্ট আবেদনে আমার নাম ভুল লেখা হয়। এমতাবস্থায়, আমি আবেদনটি বাতিল করে নতুনভাবে আবেদন করতে চাই।

অতএব, মহোদয়ের নিকট বিনীত অনুরোধ এই যে, উপরোক্ত সমস্যার কথা বিবেচনা করে আমার ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করলে আপনার একান্ত মর্জি হয়।

বিনীত নিবেদক
মোঃ ফারহান ইসলাম
মুন্সিপাড়া, রংপুর সদর, রংপুর
মোবাইল- 01886470099

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত
ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত

উপরে উল্লিখিত ফরম্যাটে আপনিও ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার দরখাস্ত করতে পারেন। আবেদনে দেয়া আমার নাম/পিতার নাম/মাতার নামের জায়গায় আপনার তথ্য দিবেন। এরপর, পাসপোর্ট আবেদনে আপনার কী ভুল হয়েছে তা উল্লেখ করে দিবেন। অবশ্যই তারিখগুলো এবং পাসপোর্ট রেজিস্ট্রেশন আইডি সঠিক দিবেন।

অতঃপর, দরখাস্তটি লেখা শেষে তা পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক বরাবর পাঠিয়ে দিবেন।

পাসপোর্ট বাতিল আবেদন করলে পেমেন্ট/চালান বাতিল হবে?

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করলে অনলাইনে মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে করা পেমেন্ট বাতিল হয়ে যাবে। তবে, আপনি যদি এ চালান এর মাধ্যমে টাকা দিয়ে থাকেন, তবে আপনার চালান বাতিল হবে না। এ চালান এর মেয়াদ থাকবে ৬ মাস। এর মাঝে, আপনি চাইলে পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করে উক্ত চালান দিয়েই আবারও আবেদন করতে পারেন।

তবে, আপনাকে মনে রাখতে হবে, পূর্বে পাসপোর্ট এর ধরণ, পৃষ্ঠা সংখ্যা, মেয়াদ যা ছিলো, একই রেখে নতুন করে আবারও আবেদন করে তবেই উক্ত এ চালান ব্যবহার করতে হবে। কারণ, পূর্বের উক্ত চালান আপনার বাতিল করা পাসপোর্ট অনুযায়ী করা ছিলো। আপনি যদি পৃষ্ঠা সংখ্যা বেশি/মেয়াদ বেশি করে আবেদন করতে চান, তবে আপনাকে নতুন করে পেমেন্ট করতে হবে।

যারা, অনলাইন মোবাইল ব্যাংকিং বা Ekpay এর মাধ্যমে তাদের পাসপোর্ট আবেদনের জন্য ফি পে করেছিলেন, ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করলে তাদের উক্ত পেমেন্ট বাতিল হয়ে যাবে। নতুন করে পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করলে আবারও পেমেন্ট করতে হবে। তবে, আপনি যদি এ চালান দিয়ে পেমেন্ট করে থাকেন, এবং আবারও শুধু তথ্য সংশোধন করে আবেদন করতে চান, তবে উক্ত চালান দিয়েই আবেদন করতে পারবেন।

পাসপোর্ট করতে কত টাকা লাগে জেনে নিতে পারেন। এতে করে, পাসপোর্ট আবেদন ফি কত টাকা তা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। এছাড়াও, নতুন ই পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে এটিও জেনে রাখতে পারেন। পাসপোর্ট আবেদন করার সময় আপনার সুবিধা হবে।

পাসপোর্ট আবেদন করার পর কোনো ভুল-ত্রুটি হলে আবেদন পত্র জমার দেয়ার আগে আবেদন বাতিল করতে পারেন। তবে, আপনি যদি আবেদনের কপি ইতোমধ্যে জমা দিয়ে থাকেন, তবে আবেদন বাতিল করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে, আপনাকে ই পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন করতে হবে।

এছাড়া, আবেদন বাতিল করার জন্য কোনো দালালের চক্করে পড়বেন না। সতর্ক থাকবেন এবং নিজেই পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক বরাবর একটি দরখাস্ত লিখুন। তাহলে, বিনা টাকায় অতি দ্রুত আপনার সমস্যার সমাধান পেয়ে যাবেন এবং নতুন করে আবেদন করতে পারবেন।

FAQ

ই পাসপোর্ট আবেদনে ভুল হলে করণীয় কী?

ই পাসপোর্ট আবেদনে ভুল হলে একটি দরখাস্ত লিখে পাসপোর্ট আবেদন সংশোধন করার চেষ্টা করতে হবে। যদি আবেদন সংশোধন করা না যায়, তবে আবেদন বাতিল করতে হবে এবং নতুন করে আবারও পাসপোর্ট এর জন্য আবেদন করতে হবে।

ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করলে পেমেন্ট বাতিল হবে?

আপনি যদি অনলাইন পেমেন্ট মাধ্যমে পেমেন্ট করে থাকেন, তবে পেমেন্ট বাতিল হয়ে যাবে। তবে, এ চালান এর মাধ্যমে পাসপোর্ট এর ফি পরিশোধ করে থাকলে উক্ত চালান দিয়েই আবারও একই পাসপোর্ট এর আবেদন জমা দিতে পারবেন।

আজকের এই পোস্টে আপনাদের সাথে ই পাসপোর্ট আবেদন বাতিল করার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি। আশা করছি, পাসপোর্ট আবেদন বাতিল কীভাবে করতে হয় ইতোমধ্যে জেনে গেছেন। ই সার্ভিস বিষয়ক এমন আরও বিভিন্ন তথ্য জানতে নিচের পোস্টগুলো পড়তে পারেন।

আমি NIDCHECK ওয়েবসাইটের প্রতিষ্ঠাতা এবং অ্যাডমিন। প্রফেশনালি কন্টেন্ট রাইটিং করার পাশাপাশি এই ব্লগে জাতীয় পরিচয় পত্র, জন্ম নিবন্ধন, ই-পাসপোর্ট এবং বিভিন্ন ই-সার্ভিস বিষয়ক তথ্য নিয়ে লিখে থাকি।

Leave a Comment