অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা করতে চাচ্ছেন? কিভাবে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা আবেদন করতে হয় জানেন না? এই পোস্টটি সম্পূর্ণ পড়লে ঘরে বসেই অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন করতে পারবেন।

আজকের এই পোস্টটি তাদের জন্য, যারা অস্ট্রেলিয়া গিয়ে টাকা উপার্জন করতে চান। কিন্তু, অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা কিভাবে করতে হয় জানেন না। তো চলুন, অস্ট্রেলিয়া কৃষি কাজের ভিসা, অস্ট্রেলিয়া ভিসা খরচ কত টাকা সহ আরও বিস্তারিত তথ্য জেনে নেয়া যাক।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা সরকারীভাবে অথবা বেসরকারিভাবে যেকোনো এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করে পেতে পারেন। অস্ট্রেলিয়া যে কাজের ভিসা আপনি নিতে চাচ্ছেন, উক্ত কাজের উপর যদি আপনার দক্ষতা থাকে, তবে অনেক সহজেই ভিসা পাবেন। দক্ষতা থাকলে বেশি বেতনে কাজ করতে পারবেন।

তো চলুন, কিভাবে ভিসা আবেদন করতে হয় জেনে নেয়া যাক।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা ২০২৪ কত টাকা লাগে

সরকারীভাবে অস্ট্রেলিয়া ভিসা নিতে গেলে খরচ ৩-৪ লক্ষ টাকা পড়বে। যা আপনি বেসরকারিভাবে নিতে গেলে ৭-৮ লক্ষ টাকা বা তার বেশি লাগতে পারে। যদি দালালের সহযোগিতা নেন, তবে অস্ট্রেলিয়া ভিসা আরও বেশি লাগতে পারে। তাই, সরকারীভাবে ভিসা আবেদন করে অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার চেষ্টা করুন।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা আবেদন

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা আবেদন করার জন্য https://immi.homeaffairs.gov.au/visas/working-in-australia এই ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে। অতঃপর, নির্দিষ্ট পেশায় কিংবা নির্দিষ্ট এলাকায় কাজের জন্য ভিসা আবেদন করতে পারবেন।

উক্ত ওয়েবসাইট সহ অস্ত্রেলিয়ার বিভিন্ন চাকুরী ওয়েবসাইটে কতজন কর্মী, কোন কাজের জন্য কর্মী লাগবে এসব প্রকাশ করা হয়ে থাকে। আপনার যে কাজের অভিজ্ঞতা এবং দক্ষতা রয়েছে, উক্ত কাজের জন্য আবেদন করে আপনি অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা নিয়ে অস্ট্রেলিয়া চলে যেতে পারবেন।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা পেতে কি কি লাগবে

  • পাসপোর্ট এর তিনটি ফাঁকা পৃষ্ঠা সহ কমপক্ষে ৬ মাস মেয়াদি পাসপোর্ট
  • জাতীয় পরিচয় পত্রের কপি
  • চার কপি সাদা ব্যাকগ্রাউন্ড রঙ্গিন ছবি
  • বয়স ১৮ থেকে ৪৫ এর মাঝে হতে হবে
  • IELTS (আইইএলটিএস) স্কোর সর্বনিম্ন ৬ হতে হবে
  • অস্ট্রেলিয়ান ভিসা ফরম
  • পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট
  • স্বাস্থ্য বীমা
  • মেডিকেল রিপোর্ট
  • করোনা ভ্যাকসিনেশন সার্টিফিকেট
  • আয়ের উৎসের প্রমাণপত্র
  • ব্যাংক সলভেন্সি স্টেটমেন্ট
  • নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের ডকুমেন্টস
  • অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থানের ঠিকানা ও নিয়োগ কর্তার ঠিকানার তথ্য
  • কোন আত্মীয় ভিসা প্রসেসিং করে থাকলে তার আমন্ত্রণ পত্র

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসার আবেদন করার নিয়ম

অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন করার জন্য প্রথমেই অস্ট্রেলিয়া জব ওয়েবসাইট ভিজিট করতে হবে। অস্ট্রেলিয়ার অনেক জব ওয়েবসাইট রয়েছে। অতঃপর, আপনার বায়োডাটা/জীবন বৃত্তান্ত/সিভি, আইইএলটিএস স্কোর, ভিসা ফরম, পরিচয় পত্র, পাসপোর্ট সহ সকল প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে একটি প্রফেশনাল সিভি তৈরি করতে হবে।

সিভি তৈরি করার পর চাকুরির বিজ্ঞপ্তি থেকে উক্ত কোম্পানির ই-মেইল অ্যাড্রেস এ বা যোগাযোগ এর মাধ্যমে সুস্পষ্ট কভার লেটার সহ আপনার সিভি পাঠিয়ে দিন। আপনি যে কাজের জন্য আবেদন করেছেন, উক্ত কাজের দক্ষতা থাকলে এবং সেগুলো আপনার সিভিতে উল্লেখ করে থাকলে, চাকুরিতে নিয়োগ পাবেন।

দক্ষতা ছাড়া অস্ট্রেলিয়া কাজের নিয়োগ পাওয়া কঠিন হয়ে যাবে। শুধুমাত্র একটি কোম্পানিতে আবেদন না করে কয়েকটি কোম্পানিতে আপনার দক্ষতা অনুযায়ী নির্দিষ্ট পেশায় আবেদন করুন। এতে করে আপনাকে চাকুরিতে নিয়োগ দিতে পারে।

আরও পড়ুন - সৌদি আরবে কোন কাজের চাহিদা বেশি

চাকুরির নিয়োগ পেয়ে গেলে আপনি অস্ট্রেলিয়া ভিসা নিয়ে অস্ট্রেলিয়া চলে যেতে পারবেন এবং টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

অস্ট্রেলিয়া জব ওয়েবসাইটের তালিকা

অস্ট্রেলিয়াতে কিছু সরকারী জব ওয়েবসাইট রয়ছে। যেখানে আবেদন করার মাধ্যমে আপনি অস্ট্রেলিয়া কাজের অনুমোদন পেয়ে অস্ট্রেলিয়া ভিসা করে অস্ট্রেলিয়া যেতে পারবেন। নিচে কিছু অস্ট্রেলিয়া কাজের ওয়েবসাইটের তালিকা উল্লেখ করে দিলাম।

অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে

সরকারীভাবে অস্ট্রেলিয়া যেতে কয়েকটি খাতে টাকা খরচ করতে হয়। এগুলো হচ্ছে, স্পন্সর খরচ, ভিসা খরচ, ভিসা কনসালটেন্সি, পুলিশ ক্লিয়ারেন্স, মেডিকেল এবং অন্যান্য খরচ। এসব খরচ করতে মোট ৩ লক্ষ টাকা থেকে ৪ লক্ষ টাকা লাগতে পারে।

তবে, বেসরকারিভাবে অস্ট্রেলিয়া যেতে চাইল এর থেকে আরও বেশি খরচ হতে পারে। যে এজেন্সি বা দালালের সহযোগিতা নিবেন, তার উপর আপনার অস্ট্রেলিয়া যাওয়ার খরচ কম বা বেশি হতে পারে।

অস্ট্রেলিয়া কৃষি কাজের ভিসা

কৃষি কাজ করতে পারলে অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা পাওয়া অনেক সহজ। অস্ট্রেলিয়া যেতে চাইলে ৩-৪ লক্ষ টাকা খরচ করে কৃষি ভিসা নিতে পারেন। এতে করে, বিভিন্ন বাগানে কৃষি কাজ করে টাকা উপার্জন করতে পারবেন। অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসায় গেলে গবাদি পশু পালন, আঙ্গুর বাগানে কাজ, কমলার বাগানে কাজ, ফুলের বাগানে কাজ, বাগান বা খামার ক্লিনার এসব কাজ করতে পারবেন।

আরও পড়ুন - মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে

অল্প দক্ষতায় বা দক্ষতা না থাকলেই অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসায় যাওয়া অনেক সহজ। তাই, অস্ট্রেলিয়া যেতে চাইলে কৃষি ভিসায় আবেদন করুন।

অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা খরচ কত টাকা

অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা খরচ অন্যান্য ভিসার মতোই। আপনি যদি অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসায় যেতে চান, তবে ৩-৪ লক্ষ টাকা লাগতে পারে। ভিস খরচ, স্পন্সর খরচ, মেডিকেল খরচ এবং আরও অনেক খরচ করতে হবে। সর্বমোট ৪ লক্ষ টাকা হলে সরকারীভাবে অস্ট্রেলিয়া যেতে পারবেন।

এছাড়াও, অস্ট্রেলিয়া যেতে চাইলে IELTS স্কোর লাগে। আপনি যদি কোনো ভিসা এজেন্সির সহযোগিতা নেন, তবে খরচ আরও বেশি লাগতে পারে।

FAQ

অস্ট্রেলিয়া যেতে বয়স কত লাগে?

অস্ট্রেলিয়া যেতে ১৮ বছর থেকে ৪৫ বছর বয়সের মাঝে হতে হয়।

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে?

বাংলাদেশ থেকে অস্ট্রেলিয়া যেতে ৩-৪ লক্ষ টাকা লাগে। ভিসা এজেন্সি বা দালালের সহযোগিতা নিলে আরও বেশি টাকা লাগতে পারে।

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যেতে IELTS স্কোর কত লাগে?

অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসায় যেতে IELTS স্কোর ৬ লাগে।

এই পোস্টে আপনাদের সাথে অস্ট্রেলিয়া কাজের ভিসা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি। এছাড়াও, অস্ট্রেলিয়া যেতে কত টাকা লাগে, অস্ট্রেলিয়া কৃষি ভিসা কত টাকা এবং অস্ট্রেলিয়া ভিসা আবেদন করার নিয়ম নিয়ে আলোচনা করেছি।

পোস্ট সম্পর্কে আপনার মতামত, যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন। আরও এমন তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইট নিয়মিত ভিজিট করুন।

Similar Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *